মুসলিমরা কিভাবে ইসলামের মূল স্পিরিট থেকে আলোকবর্ষ দূরে?

পূর্ববর্তী একটা লেখার সূত্র ধরে মুসলিমরা কিভাবে ইসলামের মূল স্পিরিট থেকে আলোকবর্ষ দূরে, এটা জানতে চেয়ে একজন আমাকে প্রশ্ন করেছেন। ভাবলাম উত্তরটা ব্লগে দেই। কারণ, এই প্রশ্ন আরো অনেকেরই থাকার কথা।

বর্তমান পৃথিবীর মুসলিমরা ইসলামের মূল জায়গা থেকে অনেক দূরে কিভাবে চলে গিয়েছে সেটা বলতে গেলে একটা বই লিখে ফেলতে হবে। এই অল্প পরিসরে শুধু একটা মৌলিক দিক তুলে ধরি।

আপনি চিন্তা করে দেখেন, একজন মানুষ... তিনি আপনার আমার মত জন্মসূত্রে মুসলিম ছিলেন না। তিনি বড় হয়েছেন পৌত্তিলকতার পরিবেশে। হিংসা, ঘৃণা ও হানাহানির পরিবেশে। সামাজিক ন্যায়বিচার বলে কিছু যেখানে ছিলো না। যেখানে ধনিক ও সম্ভ্রান্ত শ্রেণীর জন্য সবকিছু হালাল ছিলো। তিনি নিজেও ঐ শ্রেণীর পরিবারের লোক। এবং ব্যবসা করে অল্প বয়সেই প্রচুর ধন সম্পদের মালিকও হয়েছিলেন। ঐ সমাজের খারাপ ও ক্ষতি থেকে তিনি মুক্ত থেকে আরামসে জীবন কাটিয়ে দিতে পারতেন। তা না করে তিনি গিয়ে বসে থাকলেন হেরা গুহায়। মানুষের মুক্তির পথ খুঁজতে লাগলেন। অতঃপর মুক্তির দিশা নিয়ে ফেরত আসার পর তাঁকে আরবের ক্ষমতার শীর্ষে বসানোর প্রস্তাব দেয়া হলো, সেটাও তিনি অগ্রাহ্য করলেন।

কিসের জন্য?

এই সময়ের মুসলিমরা মনে করেন যেহেতু তিনি আল্লাহর মনোনীত ব্যক্তি ছিলেন সেহেতু আল্লাহর ইশারাতেই তিনি এটা করছেন। এইটুক ভেবে নিয়ে তারা এখানের মূল পয়েন্টটা এড়িয়ে যান বা ধরতে পারেন না। অন্যদের ধরার পথটাও বন্ধ করে দেয় এই 'অতি অলৌকিকতায়' বিশ্বাসী লোকজন। অবশ্যই আল্লাহর ইশারা ছিলো। কিন্তু আমাদের বর্তমান সময়ের মুসলমানেরা আল্লাহর ইশারা বলতে যা বোঝেন, সেটায় খুব বড় ধরনের গলদ আছে। যাহোক, সে আলোচনা আরেকদিন।

তো, মুহম্মদ (সাঃ) কেন ঐ সমাজের সুবিধাগুলোতে একসেস থাকার পরেও সব বাদ দিয়ে হেরা গুহায় গিয়ে বসে ছিলেন? ইসলাম বলেছিলো বলে? বেহেস্তে যাওয়ার জন্য? আল্লাহ বলেছিলো বলে?

নাহ... তখন তো ইসলাম বা আল্লাহ কেহই ছিলো না (তৎকালীন বিশ্বাস অনুযায়ী)। এমনকি আরবদের ঐ সমাজের ধর্মও কিন্তু তাঁকে এই কাজে উৎসাহ যোগায়নি।

তাহলে কেন?

এই কেনর উত্তর যদি আপনি বের করতে পারেন, তাহলে মুসলিমরা কিভাবে ইসলামের মূল জায়গা থেকে আলোকবর্ষ দূরে চলে গিয়েছে বের করে ফেলতে পারবেন। এটা অনেক বড় ভাবনা, তাই একটু সূত্র ধরিয়ে বাকীটুকু আপনার জ্ঞান-বুদ্ধির উপরে ছেড়ে দেই-

তিনি মূলত মানুষের প্রতি প্রচন্ড মমতা অনুভব করা থেকে এই কাজ করেছেন। সমাজের করুন চিত্র তাঁকে কষ্ট দিতো, মানুষের দুঃখ কষ্ট তাঁকে কষ্ট দিতো। বিচারহীনতা তাঁকে কষ্ট দিতো। এই কষ্টটা তার নিজের জন্য না, মানুষের জন্য। এমন সব মানুষের জন্য যাদের উনি চিনতেনও না। এমনসব মানুষের জন্য, যারা উনাকে অনেক কষ্ট দিয়েছে। এমনসব মানুষের জন্য, যারা উনার উপরে চরম অত্যাচার করেছে (পরবর্তীতে) এবং মেরে ফেলতে চেয়েছিলো।

আমাদের বর্তমান মুসলিমদের ভেতরে কি মানুষের জন্য এই মমতা আছে? রাসুল (সাঃ) এর মত ব্যপক মমতা না থাকুক, সামান্যতমও আছে? আপনি যখন ইসলাম প্রচার করতে বের হন, তখন মানুষের ভালোর জন্য করেন না বেহেস্তে যাওয়ার জন্য করেন? আপনি যখন ইসলাম পালন করেন কেন করেন? ইসলাম সমাজে শান্তি আনতে পারবে বলে না বেহেস্তে যাওয়ার জন্য? নিজেকে প্রশ্ন করে দেখেন... বুঝতে পারবেন।


Thoughts