ভালো চেয়ে ক্ষতি করা

আমার এই ক্ষুদ্র জীবনের পর্যবেক্ষন থেকে মনে হয়েছে, একজন মানুষ আরেকজন মানুষের সবচাইতে বড় ক্ষতিটা করে তার "ভালো" চেয়ে। কেউ ভালো চাওয়ার ভান করে আর কেউ নিজের ভেতর থেকেই ভালো চেয়ে। আপনি যখন কাউকে পছন্দ করবেন না বা ক্ষতি করতে চাইবেন তখন সেই লোকটা এই ব্যপারে সতর্ক থাকে। যেকারণে ক্ষতি করা খুব একটা সহজ হয় না। কিন্তু আপনি যখন কাউকে আসলেই পছন্দ করছেন এবং সে আপনার সাথে কথা বলতে কমফোর্ট ফিল করে, তখন আপনার দেয়া কোন পরামর্শ সে সহজেই গ্রহণ করে ফেলে। আপনার হয়তো মনে হচ্ছে আপনি ভালোই চাচ্ছেন। যে গ্রহণ করছে সেও ভাবছে তার ভালোই হবে। কিন্তু ভালো হওয়ার পরিবর্তে ব্যপারটা ক্ষতিকর হয়ে যায়। দুরদৃষ্টির অভাব থেকে এটা হয়। যিনি পরামর্শ দিচ্ছেন এবং নিচ্ছেন, উভয়েরই দুরদৃষ্টির অভাব রয়েছে। ফলে পরামর্শ গ্রহণকারী দীর্ঘমেয়াদে বিপদে পড়ে বা খারাপ থাকে।

এর একটা বড় উদাহরণ হচ্ছে সামাজিক/পারিবারিক ব্যপারে কাউন্সিলিং। আজকাল অনেকেই অনলাইনে খুব গর্ব করে বলে বেড়াচ্ছেন যে লোকজন তার কাছে আসছে পরামর্শ নিতে, তিনিও দিয়ে আনন্দবোধ করতেছেন। মূলত কিছু অনলাইন পোর্টালে লেখালেখি বা ফেসবুক বিভিন্ন ভাবনা প্রকাশ করে জনপ্রিয় হওয়া ব্যক্তিরা এসব করছেন। এরকম কয়েকজনের লেখাগুলো খুব ভালো করে পর্যবেক্ষন করে আমার মনে হয়েছে এরা খুব সহজে সিদ্ধান্তে চলে আসে। পৃথিবী সম্পর্কেও জ্ঞান অনেক কম। সরলীকরণ বেশী করেন। খুব বেশী জাজমেন্টাল। এদের পরামর্শ ক্ষতিকর হতে বাধ্য।

আবার ধরেন কেউ যদি আসলেই মানুষের সাইকোলজি ভালো বোঝে এবং ভালো পরামর্শ দেয়ার ক্ষমতা রাখে, তাদের পক্ষেও কারো ভালো চেয়ে ভালো পরামর্শ দেয়া কঠিন। কেন বলি। একজন মানুষ যখন আপনার কাছে পরামর্শ নিতে আসবে তখন সে কখনোই নিজের পুরো বাস্তবতাটা আপনার কাছে প্রকাশ করবে না। নিজের দোষগুলো যতটা সম্ভব লুকানোর চেষ্টা করবে। এমতাবস্থায় আপনি যতই জ্ঞানী হন না কেন, পৃথিবী ও মানুষদের যতই বোঝেন না কেন, সঠিক পরামর্শ দিতে পারবেন না।

মনোরোগ বিশেষজ্ঞরা দেখবেন প্রচুর সময় নিয়ে কথা বলেন। অভয় দেন যে- 'সব খুলে বলুন, আমি ছাড়া কেউ আর সেটা জানবে না'। মাসের পর মাস ধরে সেশন চলে, তারপরেও তারা সিদ্ধান্তে চলে আসেন না, সরাসরি কোন পরামর্শ দিয়ে ফেলেন না। কিন্তু সাধারণ মানুষেরা, যারা মনে করেন দুনিয়াদারী তারা সব বুঝে গেছেন, মানুষ সব চিনে গেছেন, তারা আপনার সাথে ঘন্টাখানেক বা দুই/চারদিন কথা বলেই একটা সিদ্ধান্তে চলে আসবে। আপনাকে নানারকম পরামর্শ দিতে থাকবেন। এগুলো ভুল হওয়ার সম্ভবনা সবসময়ই বেশি থাকে। আর ভুল পরামর্শ কখনো কারো ভালো করতে পারে না।


Thoughts