ফেসবুকে স্প্যাম ভিডিও নিয়া বিপত্তি

সম্প্রতি আবারো স্প্যাম ভিডিও নিয়া লোকজন একে অপরকে ভুল বুঝতে শুরু করেছে। অলমোস্ট সবার কমন অভিযোগ হচ্ছে-

'আপনি যদি খারাপ ভিডিও দেখার লিংকে ক্লিকই না করেন তাহলে আপনার আইডি থেকে আসলো কিভাবে?'
কিন্তু স্প্যাম ভিডিওগুলো যে শুধুমাত্র খারাপ ভিডিও/কনটেন্টের মাধ্যমে আসে তা কিন্তু না। লোকজনের আগ্রহ অনুযায়ী এসব এপ্লিকেশন লিংক জেনারেট করতে পারে। গুগল এডসেন্স বা ফেসবুকের বিজ্ঞাপণ জেনারেটে যে ধরনের এলগরিদম ব্যবহার করা হয় অনেকটা সে ধরনের। এই যেমন, আমার ইনবক্সেও কয়েকজনের কাছ থেকে লিংক এসেছে। একটা লিংকের বক্তব্য- 'ভারত পাকিস্থান যুদ্ধ' নিয়াও ছিলো। আরো কয়েকটা ছিলো আইটি ও গেমিং ইন্ড্রাস্ট্রির চমকে যাওয়ার মত খবর নিয়া। অনলাইনে যে বিষয় নিয়ে আপনি বেশী সার্চ করবেন সেটার সাথে রিলেটেড বিষয় দিয়ে লিংক বানানো হচ্ছে। অনেকের পক্ষেই এসব ব্যপার ধরা সম্ভব না, বিশেষ করে নন-টেকি যারা। সুতরাং গণহারে লোকজনকে পর্ন বা খারাপ ভিডিও দেখার অভিযোগ করাটা মনে হয় ঠিক না।

যাহোক, এসব লিংক যদি ধরতে নাও পারেন, কয়েকটা ব্যপার মাথায় রাখলে এর থেকে বাঁচতে পারবেন-
১) যত পরিচিত লোকজন থেকেই লিংক আসুক না কেন, পাল্টা ম্যাসেজ দিয়ে জিজ্ঞেস করে নিন যে লিংকটা কি বিষয়ে? বা এমন কোন প্রশ্ন করুন যাতে অপরজন আপনাকে জানাতে পারে যে লিংকটা তিনিই পাঠিয়েছেন।
২) এধরনের স্প্যামের ম্যাসেজগুলো একটু গড়পড়তা হয়। ভাষা দেখলেই বোঝার কথা। যেমন আমি খুব পরিচিত লোকজন ছাড়া ইনবক্সে কোনরকম কখনো লিংক টিংক দেই না। এখন যদি আমার কাছ থেকে কখনো লিংক যায় তাহলে আমার পরিচিতদের জানার কথা কোন লিংকের সাথে কি ধরনের ক্যাপশন যুক্ত করে থাকি। ধরুন আমার কাছ থেকে আপনার কাছে লিংক গেল... আপনি সেটা দেখেই বোঝা উচিত যে এটা আমি দেইনি। কারণ, আমাকে আপনি চিনেন এবং জানেন যে- লিংকের সাথে ওধরনের ক্যাপশন/বক্তব্য আমার দেয়ার কথা না।
৩) অপরিচিত কারো পাঠানো লিংক যতটা সম্ভব কম ক্লিক করবেন।
৪) কোন লিংক ক্লিক করার পর যদি কোন এপ্লিকেশন বা থার্ডপার্টি স্ক্রিপ্ট ইনস্টল করার কথা বলে, সাথে সাথে ক্যানসেল করে সেই ট্যাব ক্লোজ করে দিন।

অনলাইনে এধরনের সমস্যা ও হ্যাকড হওয়া থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য নানা ধরনের টিপস/ট্রিকস শেয়ারের উদ্দেশ্যে Security Tips - Bangla 3Lite নামে একটা গ্রুপ তৈরি করেছিলাম। ওখানে এধরনের বিপত্তি ও হ্যাক হওয়া থেকে রক্ষার আরো কিছু পরামর্শমূলক লেখা পাবেন।


Thoughts