সুইট হোম

চেক ইন করতেই বয়-বেয়ারাদের হৈ হুল্লোর শুরু হয়ে গেল
এই যে স্যার, এই সুইটে থাকবেন আপনি।
কতদিনের জন্য?
সেটা তো স্যার বলতে পারি না। কতৃপক্ষ যেদিন চাইবে, চেক আউট
যেকোন দিনই হতে পারে সেটা!

অতঃপর,
সুইটটা একটু গুছিয়ে নেয়া যাক
ঐদিকে হবে বেডরুম, ঐদিকে ডাইনিং
কিচেনটাকে একটু সাজানো যাক।
দেয়াল ভেঙ্গে রুমগুলো একটু অন্যরকম করে নিলে কেমন হয়?
ঐদিকে, বাথরুমটায় দামী কিছু ফিটিংস
মেঝেতে নতুন কার্পেট দরকার
আগামীকাল আসবে ঝকঝকে নতুন একসেট সোফা।
বেশ খরচান্ত ব্যপার,
একটু দৌড়ের উপরেই থাকতে হচ্ছে তাই।
দেয়ালগুলোতে নতুন পলেস্তার দেয়া যাক
ফার্নিচারের সাথে ম্যাচ করে রং
সাথে একটু জমকালো আলোর ব্যবস্থা।
রুমগুলোকে সব সাজিয়ে নিতে হবে
জানালাগুলোতে একটু দামী পর্দা
সাথে একটি সোকেজ ভর্তি দুর্লভ কিছু বস্তু
কিছু আসবাবপত্র ও দামী একটি টেবিল
নিলাম থেকে অনেক দামে কিনে আনা প্রচীন কিছু তৈজসপত্র
বেশ ভালোই দেখাচ্ছে এখন।

একটু টাকা জমিয়ে
ভালো একজন ইন্টেরিয়র ডিজাইনার ডেকে
আরো চমৎকার করা হলে কেমন হয়?
রিং রিং রিং
ফোন ধরতেই ম্যানেজারের কণ্ঠ
স্যার, আজকেই আপনাকে চেক আউট করতে হবে।

ত্রিভুজ
উত্তরা, ঢাকা


Thoughts