তুরস্কে সেনা অভ্যুত্থানের চেষ্টা - ২০১৬

তুরস্কে সেনা অভ্যুত্থানের চেষ্টা দেশটির জনগন ব্যর্থ করে দিয়েছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানকে ক্ষমতাচ্যুত করতে ভারী ট্যাংক নিয়ে অভ্যুত্থানের চেষ্টা চালায় সেনাবাহিনী। দেশটির বড় বড় শহরগুলোতে সংঘর্ষে প্রায় শতাধিক প্রানহানীর ঘটনা ঘটেছে। ১৫ জুলাই, ২০১৬ শুক্রবার রাত থেকে অভ্যুত্থানের চেষ্টা শুরু হয়। সারা রাত ধরে বিস্ফোরণ, ট্যাংকের ছোটাছুটি, জঙ্গি বিমানের উড্ডয়ন ও হামলা/পাল্টা হামলার পর ১৬ জুলাই, ২০১৬ শনিবার সকালের ভেতরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে চলে আসে।
এএফপির খবরে জানানো হয়, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান ক্ষমতাসীন জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট দলের (একেপি) সমর্থকদের প্রতি রাস্তায় নেমে আসার আহ্বান জানিয়েছেন। এরপর বিপুল পরিমান জনগন রাস্তায় নেমে আসে।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, শুক্রবার রাতে কৃষ্ণ সাগরীয় এলাকায় যে হোটেলে তিনি অবস্থান করেছিলেন, সেখান থেকে বের হওয়ার সাথে সাথেই সেখানে বোমা হামলা চালানো হয়। শনিবার ইস্তাম্বুলে পৌঁছে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা জানান। রাষ্ট্রীয় আনাদোলু এজেন্সি জানায়, বোমা হামলায় ৫ পুলিশ আহত হয়েছে। হামলার আগে অন্তত দুটি হেলিকপ্টার থেকে ভারী গোলাবর্ষণ করা হয়। এরপরই হোটেলটি মুখোশ পরা বন্দুকধারীরা ঘিরে ফেলে পরিস্থিতি এখনো উত্তপ্ত রয়েছে।
এরদোগান ওই হোটেলে ছুটি কাটাচ্ছিলেন। শুক্রবার রাতে সামরিক অভ্যুত্থানের খবর পেয়েই তিনি দেশবাসীকে রাস্তায় নেমে আসার আহ্বান জানান। তিনিও ইস্তাম্বুল রওনা হয়ে যান। ফলে হামলাকারীদের আক্রমণ থেকে তিনি রক্ষা পান।

Related Blogs

Thoughts